ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

অহঙ্ককার পতনের মূল, আর্শদীপের সাহায্যের হাত ফিরিয়ে দিলেন রোহিত

অহঙ্ককার পতনের মূল, আর্শদীপের সাহায্যের হাত ফিরিয়ে দিলেন রোহিত

[ad_1]

এশিয়া কাপ ২০২২-এর সুপার ফোরে পাকিস্তান ভারতকে পরাজিত করার পর শ্রীলংকার কাছেও হারে ভারত। দুবাই ক্রিকেট স্টেডিয়ামে উভয় সময়ই টিম ইন্ডিয়ার বোলাররা ১৭০ রানের বেশি লক্ষ্য রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়।

ভারতের বিপক্ষে ১৮২ রানের টার্গেট ৫ উইকেট হারিয়ে চেজ করে পাকিস্তান। একই সময়ে মাত্র চার উইকেট হারিয়ে ১৭৪ রানের লক্ষ্য অর্জন করে শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ওভারে চাপে চাপে দেখা যায় অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে।

শেষ দুই ওভারে শ্রীলঙ্কার জয়ের জন্য দরকার ছিল ২১ রান। ১৯ তম ওভারে ১৪ রান দেন ভুবনেশ্বর কুমার। শেষ ওভার বল করতে আসেন তরুণ বোলার আরশদীপ সিং। কিন্তু ৭ রান ডিফেন্ড করা তার জন্য খুবই কঠিন ছিল।

প্রথমে পাকিস্তান এবং তারপর প্রতিবেশী দ্বীপরাষ্ট্র, পরপর দুই হারে অত্যন্ত মূহ্যবান হয়ে পড়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট সমর্থকরা। ইংল্যান্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আয়ারল্যান্ড এর বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজের দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করা দল হঠাৎ করে এশিয়া কাপে এমন মুখ থুবড়ে পড়বে তা হয়তো কেউই ভাবতে পারেননি।

যদিও ওয়েস্ট ইন্ডিজ এবং আয়ারল্যান্ড তেমন কঠিন প্রতিপক্ষ ছিল না। কিন্তু বিশ্বের অন্যতম সেরা টি-টোয়েন্টি দল ইংল্যান্ডকে তাদের ঘরের মাটিতে টি-টোয়েন্টি সিরিজে হারিয়ে এসেছিলেন রোহিত শর্মারা। তারপরেও এশিয়া কাপে তাদের এই অবস্থা কেন হল সেটা বিশ্লেষণ করতে গেলে কয়েকটা কারণ উঠে আসে।

প্রথমত যশপ্রীত বুমরা এবং হর্ষল প‍্যাটেলের মতো বোলারের অভাব ভারতকে গোটা টুর্ণামেন্টে ভুগিয়েছে। ভুবনেশ্বর কুমার সুপার ফোর পর্যায়ে চূড়ান্ত খারাপ বোলিং করেছেন।

সূর্যকুমার যাদব, রিশভ পন্থরা বড় প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকভাবে ব্যর্থ হয়েছেন। এছাড়াও আরও একটা কারণ যা উঠে আসছে তা হল রোহিতের অধিনায়কত্ব।

দীনেশ কার্তিক জাতীয় দলে দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তন করার পর এশিয়া কাপে মাত্র একবার ব্যাট হাতে মাঠে নেমেছেন। সেই ম্যাচে ও তার করার খুব বেশি কিছু ছিল না। কিন্তু রোহিত শর্মা ভারসাম্যের দোহাই দিয়ে তাকে বসিয়ে রিশভ পন্থ, দীপক হুডাদের সুযোগ দিয়ে গেছেন।

আর সুযোগ পেয়েও তারা ব্যর্থ হয়েছেন। সুযোগ না দিয়েই কার্তিককে কেন বসে দেওয়া হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। কাল রোহিত শর্মা আরো এমন একটি কান্ড করেছেন যার ফলে তাকে নিয়ে প্রশ্ন উঠেই যাচ্ছে।

কাল দ্বিতীয় ইনিংসের ২০ তম ওভারে শ্রীলঙ্কাকে ৭ রান তুলতে হতো যখন বল করতে আসেন অর্শদীপ সিং। প্রথম দু’টি বলে দুর্দান্ত ইয়র্কার মারেন তিনি। এরপর ৪ বলে যখন ৫ রান বাকি তখন রাজাপক্ষ এবং শানাকা দৌড়ে দুই রান নিয়ে ৩ বলে ৩ রান বাকি এমন পরিস্থিতি তৈরি করে দেন।

এইসময় তরুণ অর্শদীপ, রোহিত শর্মার কাছে পরামর্শ চাইতে গিয়েছিলেন যে তার কেমন বল করা উচিত। কিন্তু রোহিত শর্মা এতটাই তখন হতাশ হয়ে পড়েছিলেন যে তাকে কোনো পরামর্শ না দিয়ে অন্য দিকে হাঁটা লাগান। এই ঘটনার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন ভাইরাল।

শেষপর্যন্ত ভারত এক বল বাকি থাকতেই ম্যাচ হেরে যায়। কিন্তু রোহিত শর্মা তারপর থেকে কড়া সমালোচনার মুখে পড়েছেন। অনেকেই বিরাট কোহলির সঙ্গে তার তুলনা টেনে এনেছেন।

কেউ কেউ বলছেন যে বিরাট হয়তো অধিনায়ক হিসেবে খুব উঁচু মানের কেউ ছিলেন না কিন্তু তিনি সবসময় তরুণদের পাশে দাঁড়াতেন। রোহিতের মধ্যেই দেখা ইচ্ছে দেখা যাচ্ছে না। যদিও রোহিত ভক্তরা পাল্টা জবাব দিয়েছেন যে একটিমাত্র ঘটনা দিয়ে কারোর অধিনায়কত্বের দক্ষতা বিচার করা অত্যন্ত অনুচিত।



[ad_2]

Leave a Reply