ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

এশিয়া কাপের পর্দা নামাতে আজ ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান বনাম শ্রীলঙ্কা, দেখে নিন দু’দলের একাদশ

এশিয়া কাপের পর্দা নামাতে আজ ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে পাকিস্তান বনাম শ্রীলঙ্কা, দেখে নিন দু’দলের একাদশ

[ad_1]

এবারের এশিয়া কাপে আন্ডারডগ হিসেবে শুরু করা শ্রীলঙ্কা সবাইকে চমকে দিয়ে ফাইনালের টিকিট কেটেছে। যেখানে প্রথম ম্যাচে আফগানদের কাছে হেরে গ্রুপ পর্ব থেকেই ছিটকে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল তাদের। অপরদিকে পাকিস্তানও

এবারের এশিয়া কাপে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের কাছে হেরে আসর শুরু করে। তবে পরে হংকংকে হারিয়ে সুপার ফোর। আর তারপর ভারত, আফগানিস্তানকে হারিয়ে ১০ বছর পর এশিয়া কাপের ফাইনালে ওঠে বাবর আজমের দল।

ফাইনালের আগে শুরু হয়ে গেছে অনেক হিসাব-নিকাশ। কে জিতবে এবারের শিরোপা? ফাইনালে কোন দল কাকে খেলাবে, কাকে বাদ দেবে। এমন হিসাব-নিকাশে কিছু জায়গায় এগিয়ে পাকিস্তান, আবার কিছু জায়গায় শ্রীলঙ্কা।

পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপে অন্যতম ভরসার নাম ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। দুর্দান্ত ফর্মে আছেন এ তারকা। এ পর্যন্ত ৫ ম্যাচের ৫ ইনিংসে ২টি হাফ সেঞ্চুরিসহ টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২৬ রান করেছেন এই উইকেটরক্ষক ব্যাটার।

পাকিস্তানের একাদশে তার দিকেই নজর থাকবে সবার। এবারের এশিয়া কাপে এখন পর্যন্ত নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজম। ৫ ইনিংসে মাত্র ৬৩ রান করেছেন তিনি। ফর্মে না

থাকলেও ফাইনালে জ্বলে উঠতে পারেন তিনি। আফগানিস্তান ম্যাচে ব্যাটিং করার সময় হালকা ইনজুরিতে পড়েন স্পিনিং অলরাউন্ডার শাদাব খান। তাকে বিশ্রামে দিয়ে নেওয়া হয় উসমান কাদিরকে। ফাইনালে শাদাব ফিরছেন নিশ্চিত।

শ্রীলঙ্কার ব্যাটিংয়ের দুই অন্যতম ভরসার নাম পাথুম নিশাঙ্কা ও কুশাল মেন্ডিস। দলকে দারুণ সূচনা এনে দিচ্ছেন এই দুই ওপেনার। গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশের বিপক্ষে ৪৫, সুপার ফোরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৬২, ভারতের বিপক্ষে ৯৭

রানের সূচনা এনে দেন নিশাঙ্কা ও কুশাল জুটি। তাই ফাইনাল মঞ্চে নিশাঙ্কা ও কুশালের জুটিতে আরও একটি দুর্দান্ত শুরু আশা করতেই পারে শ্রীলঙ্কা। ভানুকা রাজাপাকসেও হতে পারেন শ্রীলঙ্কার উদ্ধারকারী। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এ ব্যাটারের স্ট্রাইক রেট ১৩৭.০৩।

এদিকে বল হাতে এবারের এশিয়া কাপে পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি স্পিনার মোহাম্মদ নেওয়াজ। ৫ ইনিংসে ৮ উইকেট নিয়েছেন তিনি। ব্যাট হাতেও দলের প্রয়োজনে ম্যাচের মোড় ঘুড়িয়ে দেয়ার সামর্থ্য আছে তার। সুপার ফোরে ভারতের

বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে প্রমোশন পেয়ে ২০ বলে ৪২ রান করে ভারতের হাত থেকে ম্যাচ বের করে আনার কাজটিও করেছিলেন তিনিই। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার সেরা বোলার হিসেবেই এবারের এশিয়া কাপ শুরু করেছিলেন হাসারাঙ্গা। যদিও এখন পর্যন্ত খুব একটা সুবিধা করতে

পারেননি তিনি। প্রথম চার ম্যাচে মাত্র ৩ উইকেট নিয়েছেন হাসারাঙ্গা। তবে সুপার ফোরের শেষ ম্যাচে পুরনো হাসারাঙ্গাকে দেখা গেছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে দলের জয়ের পেছনে অবদান রাখেন তিনি। ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে ৩ উইকেট নেন।

ব্যাট হাতে ৩ বলে করেন ১০ রান। তাই ফাইনালেও ক্রিকেটপ্রেমীরা তাকে বিবেচনায় রাখতেই পারেন। এদিকে শুসুপার ফোরে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে একাদশে দুটি পরিবর্তন নিয়ে মাঠে নেমেছিল লঙ্কানরা। চারিথ আসালাঙ্কা এবং আসিথা ফার্নান্দোকে বসিয়ে

ধনঞ্জয়া ডি সিলভা এবং তরুণ প্রমোদ মাদুশানকে একাদশে সুযোগ দেয় লঙ্কান টিম ম্যানেজমেন্ট। টি-টোয়েন্টি অভিষেক ঘটে প্রমোদ মাদুশানের। দুটি উইকেট শিকার করেছেন তিনি। তাই ফাইনালে তাকে দেখা যেতে পারে দলে।

পাকিস্তানের সম্ভাব্য একাদশ

বাবর আজম (অধিনায়ক), মোহাম্মদ রিজওয়ান (উইকেটরক্ষক), ফাখর জামান, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, শাদাব খান, আসিফ আলি, মোহাম্মদ নওয়াজ, নাসিম শাহ হারিস রউফ এবং মোহাম্মদ হাসনাইন।

শ্রীলঙ্কার সম্ভাব্য একাদশ

পাথুম নিশাঙ্কা, কুশল মেন্ডিস (উইকেটরক্ষক), ধনঞ্জয় ডি সিলভা, দানুসকা গুনাথিলাকা, ভানুকা রাপাকসে, দাসুন সাকা (অধিনায়ক), ওয়ানিদু হাসারাঙ্গা, চামিকা করুনারত্নে, মহেশ থিকসানা, প্রমোদ মাদুশান, দিলশান মধুশঙ্কা।

Share

[ad_2]

Leave a Reply