ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

কোহলি ওপেনিংয়ে, তাহলে কি আমি মাঠের বাইরে বসে থাকবো ? – কেএল রাহুল

কোহলি ওপেনিংয়ে, তাহলে কি আমি মাঠের বাইরে বসে থাকবো ? – কেএল রাহুল

[ad_1]

সহস্র দিন পর দেখা মিললো সেই আকাঙ্ক্ষিত সেঞ্চুরির, বিরাট কোহলি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের ৭১তম সেঞ্চুরি করলেন। তাও আবার ওপেনিংয়ে নেমে। তাহলে কি এখন থেকে টি-টোয়েন্টিতে ওপেনার হিসেবে দেখা যাবে কোহলিকে? এমন প্রশ্নে সন্তুষ্ট নয় ভারতের আরেক ওপেনার লোকেশ রাহুল।

বৃহস্পতিবার দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সুপার ফোরে আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিয়মরক্ষার ম্যাচে ভারতের অধিনায়ক ছিলেন লোকেশ রাহুল। দলের ১০১ রানের জয়ের পর তাকেই আসতে হয় সংবাদ সম্মেলনে।

এই ম্যাচে বিশ্রামে থাকা অধিনায়ক রোহিত শর্মার জায়গায় রাহুলের সঙ্গে ওপেনিং করেন কোহলি। ৬১ বলে নিজের ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ১২২ রান করেন তিনি। ৪১ বলে ৬২ রান করা রাহুলের সঙ্গে ১১৯ রানের উদ্বোধনী জুটি ছিল তার।

ভারতের ওপেনিংয়ে নেমে বহুল প্রতীক্ষিত সেঞ্চুরি পাওয়ার পর এই পজিশনে কোহলিকে নিয়ে দারুণ সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। তাছাড়া আইপিএলে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর হয়েও ওপেনিংয়ে দেখা গেছে তাকে, যেই পজিশনে থেকেই করেছেন পাঁচ সেঞ্চুরির সবগুলো। এবার একমাত্র আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি সেঞ্চুরিও হলো ওপেনার হিসেবে।

ওপেনিংয়ে কোহলির দারুণ ইনিংসের পর রাহুলকে প্রশ্ন করা হয়, তাহলে কি ওপেনার হিসেবেই টি-টোয়েন্টিতে দেখা যাবে ডানহাতি ব্যাটসম্যানকে? সাংবাদিকের এই প্রশ্নে খুশি হতে পারেননি রাহুল, ‘তাহলে কি আমি দলের বাইরে বসে থাকবো?’

রাহুলের মতে, কোহলির ছন্দ ফিরে পাওয়া দলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ছিল। তিনি তিন নম্বরেও ভালো ব্যাট করতে পারেন। কোহলিকে ওপেনিংয়ে নামার ব্যাখ্যা দিলেন আফগান ম্যাচের অধিনায়ক, ‘অবশ্যই বিরাটের রান দলের জন্য বিশাল পাওয়া এবং আজ আফগানিস্তানের বিপক্ষে সে যেভাবে খেললো, আমি জানি সে এভাবে ব্যাট করে খুশি।

সে অনেক খাটছে এবং আজ সেটা সুন্দরভাবে কাজ করলো। আপনারা সবাই বিরাট কোহলিকে চেনেন, অনেক বছর ধরে তাকে দেখছেন। এটা এমন নয় যে, সে যখন ব্যাটিংয়ে ওপেনিং করে তখনই কেবল সেঞ্চুরি করে।

তিন নম্বরে নেমেও সে সেঞ্চুরি করতে পারে। ভূমিকা রাখাই আসল, যেটা একজন নির্দিষ্ট খেলোয়াড়ের রাখা উচিত। সে আজ সুন্দরভাবে খেললো। আমাদের পরের সিরিজে তার ভূমিকা হবে আলাদা।’

১২ চার ও ৬ ছয়ে সাজানো ছিল কোহলির ইনিংস। এশিয়া কাপের এই আসরে রয়েছে দুটি হাফ সেঞ্চুরিও। সবশেষ সেঞ্চুরিটি এলো ২০১৯ সালের নভেম্বরের পর। বিশ্বকাপের আগে এই সেঞ্চুরি নিশ্চিতভাবে আত্মবিশ্বাস বাড়াবে সাবেক অধিনায়ককে।

[ad_2]

Leave a Reply