ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

ক্রিকেটবিশ্বকে হতম্ভব, আর্শদীপের বোলিং আগুনে পুড়ে শেষ দ.আফ্রিকা, বড় জয় তুলে নিল রোহিত বাহিনী

ক্রিকেটবিশ্বকে হতম্ভব, আর্শদীপের বোলিং আগুনে পুড়ে শেষ দ.আফ্রিকা, বড় জয় তুলে নিল রোহিত বাহিনী

[ad_1]

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে জিতে শুরু করল ভারত। সিরিজ়ে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেলেন রোহিত শর্মারা। বুধাবারের ম্যাচে বল হাতে দাপট দেখালেন আরশদীপ সিংহ। ব্যাট হাতে ম্যাচ জেতান সূর্যকুমার যাদব। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৮ উইকেট জয় ভারতের।

প্রথম চার ওভারে ঝড় তুললেন ভারতের দুই পেসার আরশদীপ সিংহ এবং দীপক চাহার। তিরুঅনন্তপুরমের মাঠে সবুজ পিচ। সেই পিচে বল সুইং করছিল। সেই সুইং সামলাতেই পারছিলেন না দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটাররা।

একের পর এক উইকেট নিয়ে যাচ্ছেন আরশদীপরা। প্রথম চার ওভারের মধ্যেই পাঁচ উইকেট হারিয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা। সাজঘরে ফিরে গিয়েছেন টেম্বা বাভুমা (১), কুইন্টন ডি’কক (০), রিলি রোসৌ (০), ডেভিড মিলার (০) এবং ট্রিস্টিয়ান স্টাবস (০)। এক ওভারে তিন উইকেট নেন আরশদীপ।

শুরুর ধাক্কা গোটা ম্যাচের উপর প্রভাব ফেলল। এডেন মার্করাম ২৫ রান করেন। তিনি ওয়েন পারনেলকে সঙ্গী করে একটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তাঁকে ফিরিয়ে দেন হর্ষল পটেল। পারনেল করেন ২৪ রান।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সব থেকে বেশি রান কেশব মহারাজের। তিনি ৪১ রান করেন। মহারাজ রান না পেলে ১০০ রানের গণ্ডিও টপকাতে পারত না দক্ষিণ আফ্রিকা। পারনেলের উইকেট নেন অক্ষর পটেল। মহারাজকে ফেরান হর্ষল। আট উইকেট হারিয়ে ১০৬ রান তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ভারতের সফলতম বোলার আরশদীপ। তিনি তিনটি উইকেট নেন। চার ওভারে ৩২ রান দেন তিনি। এর মধ্যে ১৯তম ওভারে ১৭ রান দেন আরশদীপ। দু’টি করে উইকেট নেন দীপক চাহার এবং হর্ষল পটেল। রবিচন্দ্রন অশ্বিন চার ওভার বল করে মাত্র আট রান দেন।

বুধবারের ম্যাচে ছিলেন না হার্দিক পাণ্ড্য এবং ভুবনেশ্বর কুমার। তাঁদের এই সিরিজ়ে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে মাঠে নামেন ঋষভ পন্থ এবং আরশদীপ।

যশপ্রীত বুমরার হাল্কা চোট থাকায় দীপক চাহারকে খেলানো হয়। দলে রাখা হয়নি যুজবেন্দ্র চহালকেও। তাঁর বদলে দলে আসেন অশ্বিন। প্রথম দলের একাধিক বোলার না থাকলেও দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিপাকে ফেলতে সমস্যা হয়নি ভারতের।

রান তাড়া করতে নেমে ভারতও শুরুতে ধাক্কা খায়। রোহিত শর্মাকে ফিরিয়ে দেন কাগিসো রাবাডা। তৃতীয় ওভারের দ্বিতীয় বলে ফেরেন রোহিত। কোনও রান পাননি তিনি। ষষ্ঠ ওভারে ফিরে যান বিরাট কোহলিও।

মাত্র তিন করে আউট হন তিনি। অনরিখ নখিয়ার বলে উইকেট দেন বিরাট। ভারতের দুই ব্যাটারই ক্যাচ দেন উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি’ককের হাতে।

রোহিত, বিরাট ফিরলেও ভারতকে বিপদের হাত থেকে উদ্ধার করলেন সূর্যকুমার যাদব এবং লোকেশ রাহুল। বিরাট আউট হওয়ার পর মাঠে নেমেই দু’টি ছক্কা হাঁকান সূর্য।

তাঁর পাল্টা মারের খেলায় ছন্নছাড়া হয়ে যায় দক্ষিণ আফ্রিকার পেস আক্রমণ। সূর্য যখন আক্রমণাত্মক খেলে ভারতকে স্বস্তি দিচ্ছেন, রাহুল তখন এক দিকের উইকেট আটকে রেখেছেন।

[ad_2]

Leave a Reply