ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

খালি কলস বাজে বেশি, বুমরা, স্টার্ক, রাবাডাদের ডেথ ওভারগুলোতে বেশি করে ছক্কা মারবো”, প্রতিজ্ঞা করলেন আসিফ আলী

খালি কলস বাজে বেশি, বুমরা, স্টার্ক, রাবাডাদের ডেথ ওভারগুলোতে বেশি করে ছক্কা মারবো”, প্রতিজ্ঞা করলেন আসিফ আলী

[ad_1]

এশিয়া কাপ ঘরে তোলার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও হারিয়েছিলেন পাকিস্তানি ক্রিকেটাররা। ভারত সুপার ফোর থেকে ছিটকে যাওয়ার পর ফাইনালে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ট্রফি ঘরে তোলার সুবর্ণ সুযোগ ছিল বাবর আজমদের সামনে।

এটি তাদের তৃতীয়বার এশিয়া কাপ শিরোপা জয়ের বছর হতে পারত। কিন্তু ফাইনালে শ্রীলঙ্কার কাছে ২৩ রানে হেরে যায় পাক দল। ষষ্ঠ বার এশিয়া কাপের শিরোপা ঘরে তোলে দ্বীপরাষ্ট্র।

পাকিস্তানের এই হারের পর সবচেয়ে বেশি যে ক্রিকেটারের সমালোচনা করে হয়েছে তিনি হলেন পাকিস্তানের পাওয়ার হিটার আসিফ আলী। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে কোন রান না করে আউট হওয়া, শাদাব খানের সঙ্গে ধাক্কা লাগায় সহজ ক্যাচ ফেলে দেওয়া, ম্যাচের বা টুর্নামেন্টের আগে বড় বড় কথা বলে সেই প্রত্যাশা পূরণ না করতে পারা ইত্যাদি নানান কারণে তাকে নিয়ে খুব অসন্তুষ্ট পাকিস্তানের জনতা।

তিনি টুর্নামেন্ট শুরুর আগে হুমকি দিয়েছিলেন যে তিনি নেট প্র্যাকটিস রোজ ১০০ থেকে ১৫০ টি ছক্কা মেরে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত হন। কিন্তু পাকিস্তানের যখন দরকার পড়েছিল তখন খুব কম সময়ে তাকে নেট প্র্যাকটিসের সেই ছবি বাস্তবে প্রতিফলিত করতে দেখা গেছে।

তাকে নিয়ে প্রতিবেশী দেশের ক্রিকেট ভক্তরাও অনেক ব্যঙ্গ করেছে। জানা যাচ্ছে আসিফ আলী সেই বিষয় নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নন। আপাতত ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে সাত ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে পাকিস্তান দল।

সেখানে আসিফ এবং ইংল্যান্ড ওপেনার অ্যালেক্স হেলসের একটি কথোপকথনের ভিডিও সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে, যার কমেন্ট সেকশনে লোকে মন্তব্য করেছে যে আসিফ আলীর কাছ থেকে পরামর্শ নিয়ে নিজের মূল্যবান সময় নষ্ট করছেন হেলস।

এইসব কথাবার্তা শুনে আরও রেগে গিয়েছেন পাক ক্রিকেটার। নিজের ঘনিষ্ঠমহলে তিনি জানিয়েছেন যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তার মূল লক্ষ্য হবে বুমরা, রাবাডা কিংবা স্টার্কের মতো বোলারদের ডেথ ওভারগুলিতে যত বেশি সম্ভব ছক্কা মারা যায় তা নিশ্চিত করা। যদিও এই তথ্যের সত্যতা যাচাই করা সম্ভব নয়।

ইংল্যান্ড বনাম পাকিস্তান সিরিজের স্কোয়াড:

পাকিস্তান: বাবর আজম (অধিনায়ক), শাদাব খান, আমির জামাল, আবরার আহমেদ, আসিফ আলি, হায়দার আলী, হ্যারিস রউফ, ইফতিখার আহমেদ, খুশদিল শাহ, মোহাম্মদ হারিস, মহম্মদ হাসনাইন, মহম্মদ নওয়াজ, মহম্মদ রিজওয়ান, মহম্মদ ওয়াসিম, নাসিম শাহ, শাহনওয়াজ দাহানি, শান মাসুদ, উসমান কাদির

ইংল্যান্ড: জস বাটলার (অধিনায়ক), মঈন আলী, হ্যারি ব্রুক, জর্ডান কক্স, স্যাম কুরান, বেন ডাকেট, লিয়াম ডসন, রিচার্ড গ্লিসন, অ্যালেক্স হেলস, টম হেলম, উইল জ্যাকস, ডেভিড মালান, আদিল রশিদ, ফিল সল্ট, অলি স্টোন, রিস টপলে, ডেভিড উইলি, ক্রিস ওকস, লুক উড, মার্ক উড

[ad_2]

Leave a Reply