ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই কোটি ভক্তদের কাঁদিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন নাইট তারকা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগেই কোটি ভক্তদের কাঁদিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন নাইট তারকা

[ad_1]

আইপিএলে পঞ্জাব কিংস ও কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে খেলা ডানহাতি পেসার অনুরীত সিং অলবিদা জানালেন ভারতীয় ক্রিকেটকে। সোমবার টুইটারে এক বিবৃতি দিয়ে এই কথা জানিয়েছেন তিনি।

ঘরোয়া ক্রিকেটে রেলওয়েজ,বরোদা,সিকিম এবং পঞ্জাবের হয়ে খেলেছেন তিনি। ৩৪ বছর বয়সি এই ডানহাতি ব্যাটার এবং ডানহাতি মিডিয়াম পেসার শেষবার সিকিমের হয়ে খেলেছেন ঘরোয়া ক্রিকেটে।

টুইটার বার্তায় তিনি লিখেছেন ‘ ছোটবেলা থেকেই আমি ক্রিকেটার হতে চেয়েছি। আমার ক্রিকেটের সফরটা অনবদ্য ছিল। যখন ১৬ বছর বয়স ছিল আমি তখন দিল্লির সুভানিয়া ক্রিকেট ক্লাবের হয়ে খেলা শুরু করি।

আমার কাছে এটা স্বপ্ন সত্যি হওয়ার মতন ছিল। আমি ইন্ডিয়ান রেলওয়েজের হয়ে ২০০৮ সালে কর্ণাটকের বিরুদ্ধে প্রথমবার ঘরোয়া ক্রিকেটে রঞ্জি ট্রফি খেলার সুযোগ পাই।

আমি আমার অধিনায়ক এবং মেন্টর সঞ্জয় বাঙ্গারকে ধন্যবাদ জানাব। ধন্যবাদ জানাব অভয় শর্মা স্যার,ক্যাটি ভাইয়া (মুরলি কার্তিক),আমার কোচ রাধেশ্যাম শর্মা স্যার,দেবিন্দর বিস্ত স্যার,রঞ্জন সচদেবা স্যার।

ধন্যবাদ জানাব আমাকে সঠিক দিশা দেখানোর জন্য এবং মেন্টর হওয়ার জন্য। ওনাদের আমার ক্রিকেট কেরিয়ারের পাশাপাশি ব্যক্তিগত জীবনেও ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ ছিল।

আমি আজকে যে মানুষটা হয়ে উঠতে পেরেছি তা ওনাদের সহায়তা এবং উপদেশেই হয়েছি। আমি বিসিসিআই,পশ্চিম রেলওয়ে,উত্তর রেলওয়ে,

ভারতীয় রেলওয়ে বরোদা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন,সিকিম ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন, আইপিএলের ফ্রাঞ্চাইজি রাজস্থান রয়্যালস,

কিংস ইলেভেন পঞ্জাব এবং কলকাতা নাইট রাইডার্সের ম্যানেজমেন্ট এবং সমস্ত সাপোর্ট স্টাফকে ধন্যবাদ জানাই আমাকে তাদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ দেওয়ার জন্য। ‘

প্রসঙ্গত ২০০৯-১৮ এই সময়কালে কেকেআর, পঞ্জাব কিংস এবং রাজস্থান রয়্যালসের হয়ে তিনি মোট ১৮ টি ম্যাচ খেলেছেন। নিয়েছেন ১৮ টি উইকেট। সেরা পারফরম্যান্স ২৩ রানে ৩ উইকেট।

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে তার দখলে রয়েছে ২৪৯ টি উইকেট। লিস্ট-এ ক্রিকেটে নিয়েছেন ৮৫টি উইকেট। টি-২০ ক্রিকেটে তার ঝুলিতে রয়েছে ৬৪ টি উইকেট।

২০০৮ সালে অভিষেকের পর থেকে ২০১৮-১৯ মরশুম পর্যন্ত রেলওয়জের হয়ে খেলেছেন তিনি। ২০১৯-২০ মরশুমে খেলেন বরোদার হয়ে। ২০২১ সালের মার্চে তিনি ২২ গজে শেষবার খেলেছেন সিকিমের হয়ে।

[ad_2]

Leave a Reply