ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

দল গঠন নিয়ে ‌বেশ কড়া ভাষায় রোহিত, দ্রাবিড়দের উদ্দেশ্যে একঝাঁক প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন হরভজন সিং

দল গঠন নিয়ে ‌বেশ কড়া ভাষায় রোহিত, দ্রাবিড়দের উদ্দেশ্যে একঝাঁক প্রশ্ন ছুঁড়ে দিলেন হরভজন সিং

[ad_1]

ভারতকে এশিয়া কাপে টিকতে থাকতে গেলে একাধিক বিষয়ের দিকে নজর দিতে হবে। পরপর ম্যাচ হেরে এখন চাপে। এই পরিস্থিতিতে দল গঠন নিয়ে সুপার ফোরের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের কাছে হেরে সঙ্কটজনক পরিস্থিতিতে পড়ে গিয়েছিল ভারত।

ফাইনালের স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে গেলে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে জেতা ছাড়া রাস্তা ছিল না। কিন্তু গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে হেরে ফাইনালের লড়াই থেকে কার্যত ছিটকে গেছে ভারত। খাতায়কলমে সম্ভাবনা থাকলেও খুবই কঠিন। শ্রীলঙ্কার কাছে হারের পর প্রশ্ন উঠছে ভারতের দল নির্বাচন নিয়ে। অধিনায়ক রোহিত শর্মা , হেড কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের উদ্দেশ্যে একাধিক প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছেন ভারতের প্রাক্তন অফস্পিনার হরভজন সিং। টুইটারে টিম ম্যানেজমেন্টের সিদ্ধান্ত নিজে হরভজন প্রশ্ন তুলেছেন।

তিনি জানতে চেয়েছেন, “১৫০ কিমি গতিতে বোলিং করা উমরান মালিক কোথায়? সুইং করানোর দক্ষতাসম্পন্ন জোরে বোলার দীপক চাহারই বা কোথায়? এই দুই জোরে বোলার কি সুযোগ পাওয়ার যোগ্য নয়?” শুধু এখানেই থেমে থাকেননি হরভজন সিং। দীনেশ কার্তিককে কেন ধারাবাহিকভাবে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না, তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি টুইটারে লিখেছেন, “দীনেশ কাতিকের মতো উইকেটকিপার ব্যাটারকে ধারাবাহিকভাবে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে না?‌ এটা একেবারেই অপ্রত্যাশিত।”

শুধু হরভজন সিংই নন, অনেক প্রাক্তন ক্রিকেটারই রোহিত শর্মার সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। যেমন ইরফান পাঠানের প্রশ্ন অর্শদীপ সিংকে ১৯ তম ওভারে কেন বোলিং করতে পাঠানো হয়নি তা নিয়ে। তিনি বলেন, “বাঁহাতি জোরে বোলারের বল কোনাকুনি আসছিল।

রোহিতের উচিত ছিল, অর্শদীপকে ১৯ তম ওভারে আক্রমণে নিয়ে আসা। তাহলে শ্রীলঙ্কা চাপে পড়ে যেত।” দীপক হুডাকে বোলিং না দেওয়া নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ইরফান পাঠান। তিনি বলেন, “রোহিত আরও একটা ভুল করেছে। দীপক হুডাকে দিয়ে বোলিং করানো উচিত ছিল। শিশিরের জন্য কোনও সমস্যা ছিল না। উইকেট থেকে স্পিনাররা সাহায্য পাচ্ছিল। দীপক হুডাকে বল করানো উচিত ছিল।”

১২ বলে ২১ রান যখন বাকি ছিল তখন ১৯তম ওভারে রোহিত শর্মা বোলিং করার ভার তুলে দেন ভুবনেশ্বর কুমারের উপর। ভুবনেশ্বর কুমার নিজের ওভারে ১৪ রান দেন এবং ম্যাচটা অনেক সহজ হয়ে যায় শ্রীলঙ্কার কাছে। শেষ ওভারে জয়ের জন্য শ্রীলঙ্কার দরকার ছিল ৭ রান। অর্শদীপ মরিয়া চেষ্টা চালিয়েছিলেন। কিন্তু শেষরক্ষা করতে পারেননি।

[ad_2]

Leave a Reply