ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

দীর্ঘদিন পর রেড ডেভিলসদের জিতিয়ে সি আর সেভেনের এখন 700তম, ‘তুমিই সেরা’ মন্তব্য বিরাট কোহলির

দীর্ঘদিন পর রেড ডেভিলসদের জিতিয়ে সি আর সেভেনের এখন 700তম, ‘তুমিই সেরা’ মন্তব্য বিরাট কোহলির

[ad_1]

সময়টা তার খুবই খারাপ যাচ্ছিল। গত মরশুম অবধিও যে ফুটবলার ৩৭ বছর বয়সে নিজের চেয়ে বয়সে অনেক ছোট ডিফেন্ডারদের গতিতে পরাস্ত করছিলেন ড্রিবলিংয়ে মাটি ধরার ছিলেন সেই ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোই যেন চলতি মরশুমে যেন নিজের ছায়া হয়ে দাড়িয়েছিলেন।

পারছিলেন না ঠিকমত শ‍্যূট করতে, না পারছিলেন পায়ের কাজে ডিফেন্ডারদের ফাঁকি দিতে। ক্লাব ফুটবল হোক বা দেশের জার্সি, সব জায়গাতেই ব্যর্থতাই সঙ্গী হচ্ছিল সি আর সেভেনের। কিন্তু কালকে সেই ব্যর্থতা সাময়িকভাবে কাটিয়ে দিলেন ইউনাইটেডের জার্সি নাম্বার সেভেন।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের শেষ ম্যাচে ইউরোপা লিগে বহু চেষ্টা করেও গোলের দেখা পাননি রোনাল্ডো। আর সতীর্থরা মরিয়া চেষ্টা করেছিল তাকে গোলে ফেরানোর।

কিন্তু কখনও গোলপোস্ট বা কখনও গোলকিপারের মরিয়া চেষ্টা তাকে গোল পেতে দেয়নি। ধারে-ভারে নিজেদের চেয়ে অনেক পিছিয়ে থাকা সাইপ্রাসের ওমোনিয়া নিকোসিয়ার বিরুদ্ধে কোনওরকমে ৩-২ ফলে জয়ে সি আর সেভেনের অবদান ছিল কেবল মাত্র একটি অ্যাসিস্ট।

ফলস্বরূপ চলতি মরশুমে ইপিএলের ম্যাচে ফের একবার তাকে বেঞ্চেই রেখেছিলেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ এরিখ টেন হাগ।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে কালকের হোম ম্যাচে মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যে দুর্দান্তভাবে গোল করে এগিয়ে গিয়েছিল এভার্টন। দূরপাল্লার শটে দুরন্ত গোল করে মার্সেসাইডের দলকে এগিয়ে দিয়েছিলেন নাইজেরিয়ান ফুটবলার আলেক্স আইওবি।

তোতার ১০ মিনিট পরে ম্যান ইউ স্ট্রাইকার অ্যান্থনি মার্শিয়ালের পাস থেকে গোল করে ডেভিলসদের সমতায় ফেরান ব্রাজিলিয়ান তরুণ অ্যান্থনি। কিন্তু ম্যাচের আধঘন্টা নাগাদ চোট পেয়ে ছাড়তে বাধ্য হন ফ্রেঞ্চ ফরোয়ার্ড মার্শিয়াল এবং তার জায়গায় মাঠে আসেন রোনাল্ডো।

এভার্টনের গোলটির ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও দোষ ছিল ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরোর। কিন্তু রোনাল্ডো মাঠে নামার ১৫ মিনিটের মধ্যে মাঝমাঠে এভার্টন ফুটবলারের পা থেকে বল কেড়ে নিয়ে একটি অসাধারন থ্রু পাস বাড়ান রোনাল্ডোকে।

সেই বল ধরে প্রবল গতিতে এভার্টন বক্সে ঢুকে আসেন রোনাল্ডো এবং প্রথম বারে এভার্টন গোলরক্ষক জর্ডন পিকফোর্ডকে হার মানিয়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন।

চলতি মরশুমে এটি ছিল তার দ্বিতীয় গোল এবং প্রথম ইপিএল গোল। ২০২২-২৩ মরশুমে ক্লাব ও দেশের জার্সিতে মোট ১৩ টি ম্যাচ খেলে রোনাল্ডোর ২টি গোল ও ২টি অ্যাসিস্ট করা হয়ে গিয়েছে।

তবে এই ১৩ টি ম্যাচের মধ্যে খুব কম সংখ্যক ম্যাচেই তিনি পুরো ৯০ মিনিট বা প্রথম থেকে খেলেছেন। কালকে গোলের পর সকলেই আশা করছেন যে রোনাল্ডো আবার নিজের পুরনো ছন্দে ফিরে আসবেন।

কাল দ্বিতীয়ার্ধে আর গোল সংখ্যা বাড়াতে পারেনি কোনও পক্ষই। কালকের রোনাল্ডোর গোলটি ছিল তার ক্লাব ফুটবলের ৭০০ তম গোল। নতুন মাইলফলক ছুঁয়ে জয়ের পর কাল সোশ্যাল মিডিয়ায় রোনাল্ডো লিখেছিলেন “দারুন জয় পেয়েছে দল আমরা সঠিক দিকে এগোচ্ছি।”

সেই পোষ্টের কমেন্ট বক্সে বিরাট কোহলি রোনাল্ডোকে নিজের ৭০০ তম গোলের জন্য শুভেচ্ছা জানান এবং তাকে সর্বকালের সেরা বলে মন্তব্য করেন। কিছুদিন আগে বিরাট কোহলির সঙ্গেও ঠিক এমনটাই হচ্ছিল ফোনটা সম্প্রতি রোনাল্ডোর সাথে চলছিল। তার ব্যাটে রান আসছিল না, সমালোচকরা সমালোচনায় বিদ্ধ করছিলেন।

কিন্তু সমালোচকদের যোগ্য জবাব দিয়ে দুরন্ত ফর্মে ফিরেছেন বিরাট। রোনাল্ডোও নিজের কেরিয়ারে অসংখ্যবার এমনভাবে নিজের পারফরম্যান্সের মধ্যে দিয়ে সমালোচকদের জবাব দিয়েছেন।

বিরাট কোহলি এবং ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর দুজনের সামনে এখন মূল লক্ষ্য হলো আগামী দুই মাসে আয়োজিত হতে চলা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ফুটবল বিশ্বকাপে নিজের দেশকে সর্বোচ্চ খ্যাতি অর্জনে সাহায্য করা। নিজের লক্ষ্য পূরণের উদ্দেশ্যে ইতিমধ্যেই ভারতীয় দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়া পৌঁছে অনুশীলন শুরু করে দিয়েছেন বিরাট।

দীর্ঘদিন পর রেড ডেভিলসদের জিতিয়ে সি আর সেভেনের এখন 700তম, ‘তুমিই সেরা’ মন্তব্য বিরাট কোহলির

[ad_2]

Leave a Reply