ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে বড় ৩ অস্ত্রের দাপট দেখাবেন রোহিত শর্মা

বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে বড় ৩ অস্ত্রের দাপট দেখাবেন রোহিত শর্মা

[ad_1]

অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অনুশীলনে ব্যস্ত টিম ইন্ডিয়া। এই আইসিসি টুর্নামেন্টে টিম ইন্ডিয়ার প্রথম মুখোমুখি হবে ২৩ অক্টোবর পাকিস্তানের সাথে। অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে দুই দলের এই ‘সুপারহিট’ ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে

গত বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের কাছে হারের মুখে পড়া টিম ইন্ডিয়া এবার জয়ের অভিপ্রায় নিয়ে মাঠে নামবে।

একই সঙ্গে টিম ইন্ডিয়ার কাছে এমন তিনটি কারণ রয়েছে, যা পাকিস্তানের বিরুদ্ধে জয় এনে দিতে পারে। আমরা এখানে সেই তিনটি কারণ সম্পর্কে আপনাকে বলব।

এই বছর টিম ইন্ডিয়ার বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান সূর্যকুমার যাদবের ব্যাটে আগুন জ্বলছে (রান)। এই বছর ২৩ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ৪০.০৫ ব্যাটিং গড়ে ৮০১ রান করেছেন সূর্য।

এই বছর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি করেন সূর্য। মাত্র ৫৫ বলে ১১৭ রান করেন তিনি। সূর্য পাকিস্তানের বিরুদ্ধে দুটি ম্যাচে মোট ৩১ রান করেছেন,

তবে তার তাত্ক্ষণিক ফর্ম দেখে বলা যেতে পারে যে তিনি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের জয়ের একটি বড় কারণ হয়ে উঠতে পারেন। ভারতীয় দলে দীর্ঘদিন পর ফিরছেন অক্ষর প্যাটেল, বোলিংয়ে রবীন্দ্র জাদেজাকে মিস করতে দেননি টিম ইন্ডিয়া।

এই বছর টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ১৭টি ম্যাচ খেলেছেন অক্ষর প্যাটেল। এই ১৭ ম্যাচে তার নামে ১৮ উইকেট রয়েছে। ভারত সফরে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি-টোয়েন্টি সিরিজে তিনি তার জাদুকরী স্পিন দিয়ে সবাইকে মুগ্ধ করেছিলেন।

একইসঙ্গে এ বছর পাকিস্তানের বিপক্ষে কোনো ম্যাচ খেলেননি অক্ষর প্যাটেল। তবে তার মানে এই নয় যে পাকিস্তানের বিপক্ষে বোলিংয়ে তাকে বিস্ময় করতে দেখা যাবে না। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে জয়ের দ্বিতীয় বড় কারণ হয়ে উঠতে পারে অক্ষরের বোলিং।

হার্দিক পান্ড্য এবং দীনেশ কার্তিক টিম ইন্ডিয়ার হয়ে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে সবচেয়ে বড় ম্যাচ বিজয়ী হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই শেষ ওভারে ছক্কা মেরে ভারতকে জয় এনে দিয়েছিলেন হার্দিক পান্ডিয়া।

একইসঙ্গে ভারত সফরে অস্ট্রেলিয়া দলের বিপক্ষে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও একই কীর্তি করলেন দিনেশ কার্তিক। এই দুই খেলোয়াড়ই গত ছয় মাসে ভারতীয় দলের হয়ে ম্যাচ উইনার হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এই দুই খেলোয়াড়ের কাছ থেকে টিম ইন্ডিয়া এবং ভক্তদের অনেক আশা রয়েছে। হার্দিক-কার্তিকের বাহুতে ম্যাচ জেতার শক্তি কারও চোখের আড়াল নয়। এই দুই খেলোয়াড়ই ভারতের জয়ের তৃতীয় বড় কারণ হতে পারে

[ad_2]

Leave a Reply