ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

ব্যক্তিগত আক্রমণ আমাকে খুব কষ্ট দেয়, দেশজুড়ে নিন্দার মুখে চরম হতাশ বাবর আজম

ব্যক্তিগত আক্রমণ আমাকে খুব কষ্ট দেয়, দেশজুড়ে নিন্দার মুখে চরম হতাশ বাবর আজম

[ad_1]

বর্তমানে নিন্দার শীর্ষে রয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট দল। প্রথমে এশিয়া কাপের পারফরমেন্স, আর তারপর বিশ্বকাপের জন্য খারাপ দলগঠন, সব মিলিয়ে আলোচনায় পড়শি দেশের ক্রিকেট।

বিশেষ করে নিন্দার মুখে পড়েছেন বাবর আজম। তাঁর টানা অফফর্মের পাশাপাশি যোগ হয়েছে অধিনায়কত্ব নিয়ে প্রশ্ন। কারণ এশিয়া কাপের দলের মিডল অর্ডার ব্যর্থ হলেও বাবরের কোনও উদ্য়োগ দেখা যায়নি।

বা বিশ্বকাপে পরিবর্তন করা হয়নি। এই পরিস্থিতিতে দলের প্রাক্তন প্লেয়ার থেকে বিশেষজ্ঞরা আক্রমণ করছেন দলের ম্য়ানেজমেন্টকে। শোয়েব আখতার জানিয়েছেন, বাবর আজমের কভার ড্রাইভ ভালো আর কিছু না। দেশজুড়ে এই নিন্দার মুখে পড়ে অবশেষে মুখ খুললেন বাবর আজম।

ইংল্যান্ডে বিরুদ্ধে বর্তমানে সাত ম্য়াচের টি-২০ সিরিজ খেলছে পাকিস্তান। সিরিজ শুরুর আগে সংবাদিক বৈঠকে বাবর আজম বলেন, “প্রাক্তন প্লেয়াররা অবশ্যই তাদের মত প্রকাশ করতে পারেন।

কিন্তু ব্যক্তিগত আক্রমণটা কষ্ট দেয়। প্রাক্তন প্লেয়াররা জানেন না আমাদের উপর কতটা চাপ ও দায়িত্ব থাকে। আমি যদিও এই ধরনের মন্তব্যকে পাত্তা দিই না।

দ্রুত এই পরিস্থিতিত থেকে তিনি বেরিয়ে যাবেন বলে আশাবাদী। কারণ নিজের উপর তাঁর বিশ্বাস আছে। বলেন, “আমার কাছে এই সিরিজটা গুরুত্বপূর্ণ।

এবং আমি চেষ্টা করছি নিজের ফর্ম ফেরানোর। খারাপ সময় থেকে বেরনোর জন্য ভালো রাস্তা হল বেশি না ভাবা। জিনিসগুলোকে সহজ করে ভাবি আমি। নিজের উপর ভরসা রাখছি। আমি জানি আমি অতীতে ভালো করেছি এবং ভবিষ্যতেও ভালো করব।”

টি-২০ বিশ্বকাপের আগে পাকিস্তান দল তাদের টপ অর্ডার ঠিক করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে। কারণ এশিয়া কাপে পাকিস্তানকে সবথেকে বেশি ভুগিয়েছে ব্যাটিং। মহম্মদ রিজওয়ান মাত্র রান পেয়েছেন। বাকি কেউ রান পাননি। মিডল ও লোয়ার অর্ডার চূড়ান্ত ব্যর্থ। যার ফল দেখা গেছে এশিয়া কাপের ফাইনালে।

পাকিস্তানের দল গঠন নিয়ে সবথেকে বেশি বিতর্ক হয়েছে শোয়েব মালিককে দলে না রাখায়। কারণ দলের অন্যতম সিনিয়র প্লেয়ার মালিক একাধিক লড়াইয়ের সাক্ষী। পাকিস্তান দলে ফিরেছেন শাহিন আফ্রিদি যেটা দলের কাছে একটা ভালো দিক।

[ad_2]

Leave a Reply