ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

ম্যাচের সেরা পুরষ্কার পাওয়া উচিৎ ছিল সূর্যকুমারের, পুরষ্কার হাতে অবাক করা মন্তব্য করলেন রাহুল

ম্যাচের সেরা পুরষ্কার পাওয়া উচিৎ ছিল সূর্যকুমারের, পুরষ্কার হাতে অবাক করা মন্তব্য করলেন রাহুল

[ad_1]

গতকাল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় টি-২০ ম্যাচ অনায়াসে জিতে নিয়েছে ভারত। ‘হাই স্কোরিং’ ম্যাচে প্রোটিয়ারা শেষের দিকে লড়াই করলেও ভারতের বেঁধে দেওয়া লক্ষ্যের কাছে পৌঁছতে পারেননি কুইন্টন ডি’কক, ডেভিড মিলাররা।

এই আবহে গতকাল ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলে সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ভারতীয় দলের সহ-অধিনায়ক কেএল রাহুল। তবে এই পুরস্কার পেয়ে ‘অবাক’ হন রাহুল। তাঁর মতে, ম্যাচের সেরা হওয়া উচিত ছিল সূর্য কুমার যাদবের।

কেএল রাহুল এদিন শুরু থেকেই মারমুখী রূপ ধারণ করেন। মাত্র ২৮ বলে ৫৭ রানের ইনিংস খেলেন রাহুল। এদিকে সূর্য কুমার যাদব রবিবার মাত্র ২২ বলে ৬১ রানের অসাধারণ একটি ইনিংস খেলেন।

তাই রাহুল ভেবেছিলেন ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হবেন সূর্যই। যদিও পুরস্কার ওঠে তাঁর হাতে। এদিকে ম্যাচ সেরার পুরস্কার পেয়ে রাহুল বলেন, ‘নির্দিষ্ট দিনে দলের কী প্রয়োজন, ওপেনার হিসেবে তা বোঝা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

বিভিন্ন পরিস্থিতিতে নিজেকে পরীক্ষা করা উচিত। তাই আজকের ইনিংসে আমি সন্তুষ্ট ছিলাম। প্রথম ২-৩ ওভারের পরে রোহিত এবং আমি পরস্পরের সঙ্গে কথা বলি।

আমাদের মতে এই পিচে ১৮০-১৯০ ভালো রান হত। তবে এই পুরস্কার পেয়ে অবাক হয়েছি। আমার মনে হয়, সূর্য আমার থেকেও বড় প্রভাব ফেলেছে আজকের ম্যাচে। বিরাট যেভাবে ব্যাটিং করেছে তা দুর্দান্ত ছিল। দীনেশও আজকে ভালো করেছে।’

রাহুল এদিন আরও বলেন, ‘আমি পিচে সেট হয়েছিলাম ব্যাক-ফুট পাঞ্চ খেলে। যখন আমি উইকেটের দুই দিকেই খেলি তখন আমি জানি যে

আমার ভারসাম্য ভালো আছে এবং মাথা বলের উপর ঠিক জায়গায় আসছে। এদিকে ভারতে সবসময়ই মাঠে ভিড় হয়। পুরো স্টেডিয়ামের সামনে এই হট্টগোলের মধ্যে খেলে তাই ভালো লাগছিল।’

[ad_2]

Leave a Reply