ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

সত্যিকারের বন্ধু’, জন্মদিনে আবেগময় বার্তা বিরাটের, ‘চ্যাম্প’ বললেন সুনীল

সত্যিকারের বন্ধু’, জন্মদিনে আবেগময় বার্তা বিরাটের, ‘চ্যাম্প’ বললেন সুনীল

[ad_1]

সুনীল ছেত্রী এবং বিরাট কোহলি দীর্ঘদিনের বন্ধু। বিরাটের বিয়ের রিসেপশনেও গিয়েছিলেন সুনীল এবং তাঁর স্ত্রী সোনম। সুনীল এবং বিরাটের সেই রসায়নে মজেছেন নেটিজেনরাও। ভারতের ক্রীড়া ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম দুই সেরা খেলোয়াড়ের একে অপরের প্রতি যে শ্রদ্ধা আছে, তাতে মুগ্ধ হয়েছেন।

দুই খেলার ‘মুখ’ দু’জনে। আছে দিল্লি এবং বেঙ্গালুরু ‘কানেকশন’। দু’জনের বন্ধুত্ব নেহাত কমদিনের নয়। একে অপরকে যে কতটা শ্রদ্ধা করেন, তা একাধিকবার বুঝিয়ে দিয়েছেন। সেই রেশ ধরে ‘সত্যিকারের বন্ধু’ সুনীল ছেত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানালেন বিরাট কোহলি। বন্ধুকে ধন্যবাদ জানালেন সুনীলও।

মঙ্গলবার বিরাট বলেন, ‘সত্যিকারের পরিশ্রমী মানুষ, মূল্যবোধও দারুণ। এমন একজন ব্যক্তি, যে ব্যক্তিকে নিজের সত্যিকারের বন্ধু বলতে পারি। আমাদের বন্ধুত্বের জন্য আমি কৃতজ্ঞ। সবসময় তোমার সেরাটার জন্য কামনা করি। তোমার বয়স যখন এক বছর কমে গেল, তখন তোমায় শুভেচ্ছা জানাচ্ছি এবং তোমার জীবন ইতিবাচকতায় পূর্ণ থাকবে বলে আশা করছি। শুভ জন্মদিন সুনীল ছেত্রী।’ সেইসঙ্গে ‘লাভ’ সাইনও দেন বিরাট।

বিরাটের টুইটে ধন্যবাদ জানান ভারতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক সুনীল। ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা ক্রীড়াবিদ বলেন, ‘চ্যাম্প, তোমার বিরাট কোহলি আবেগময় বার্তায় অভিভূত। আমাদের বন্ধুত্ব নিয়ে তোমার যে অনুভূতি, সেই অনুভূতি আমারও। আমি অত্যন্ত কৃতজ্ঞ যে আমাদের পথ এভাবে মিশে গিয়েছে।’

এমনিতে সুনীল এবং বিরাট দীর্ঘদিনের বন্ধু। বিরাটের বিয়ের রিসেপশনেও গিয়েছিলেন সুনীল এবং তাঁর স্ত্রী সোনম। সেইসময় বিরাট এবং অনুষ্কা শর্মাকে এমনভাবে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন সুনীল, তা ভাইরাল হয়ে গিয়েছিল। বিরাট, অনুষ্কা, সোনম এবং নিজের ছবি পোস্ট করে সুনীল বলেছিলেন, ‘ছবিতে দু’জন অধিনায়ক আছে। বাকি দু’জন জীবন কাটানোর জন্য ক্রিকেট এবং ফুটবল খেলে। এই দুর্দান্ত যাত্রার জন্য তোমাদের শুভেচ্ছা এবং ভালোবাসা।’

পরিবর্তে একাধিকবার সুনীল এবং বিরাট একাধিক মঞ্চে এসেছেন। রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরের অনুশীলনে ঘুরে গিয়েছেন সুনীল। দু’জনে সোশ্যাল মিডিয়ার লাইভে কথা বলেছেন, মজা করেছেন। যে রসায়ন আজ টুইটারেও ধরা পড়েছে। সুনীল এবং বিরাটের সেই রসায়নে মজেছেন নেটিজেনরাও। ভারতের ক্রীড়া ইতিহাসে সর্বকালের অন্যতম দুই সেরা খেলোয়াড়ের একে অপরের প্রতি যে শ্রদ্ধা আছে, তাতে মুগ্ধ হয়েছেন।



[ad_2]

Leave a Reply