ADS বিজ্ঞাপনের জন্য যোগাযোগ করুন: [email protected]

সুপার-ফোরের চাপ কমাতে বিচ ভলি, রোয়িংয়ে মজে রোহিতের টিম ইন্ডিয়া, ভিডিও ভাইরাল

সুপার-ফোরের চাপ কমাতে বিচ ভলি, রোয়িংয়ে মজে রোহিতের টিম ইন্ডিয়া, ভিডিও ভাইরাল

[ad_1]

চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী পাকিস্তানকে হারানোর পর দুর্বল হংকং-কে উড়িয়ে দেওয়া। জোড়া ম্যাচ জিতে চলতি এশিয়া কাপের সুপার-ফোরে জায়গা করে নিয়েছে টিম ইন্ডিয়া । শুক্রবার হংকং-কে পাকিস্তান হারালেই, ৪ সেপ্টেম্বর অর্থাৎ ফের আর একটা রবিবার বাইশ গজে ‘মাদার অফ অল ব্যাটেল’। বাবর আজমদের বিরুদ্ধে ফের একবার নামার আগে একেবারে মানসিকভাবে ফুরফুরে থাকতে চাইছে রোহিত শর্মার দল। সেই লক্ষ্যেই ক্রিকেট থেকে সাময়িকভাবে চোখ সরিয়ে ছুটির মেজাজে ধরা দিলেন বিরাট কোহলি -সূর্য কুমার যাদবরা ।

বিসিসিআই-এর তরফে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে যে রোহিত, বিরাট, অশ্বিন, কার্তিকরা সবাই রোয়িং করছেন। অনেকে আবার বিচ ভলিতেও মেতে উঠেছেন। দেখে মনেই হচ্ছে না যে আগামী রবিবার এশিয়া কাপের নক আউট ম্যাচে খেলতে নামবেন তাঁরা। ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে যে যুজবেন্দ্র চাহাল বলছেন, ‘আমাদের একদিন ছুটি ছিল। তাই রাহুল স্যর বললেন যে আজ একটু অন্যরকম কার্যকলাপ হবে। সেই মতই আমরা রোয়িং ও বিচ ভলিতে মেতে উঠেছি।’ বিচ ভলিতে মেতে ওঠা ছাড়া, কখনও সার্ফিংয়ে মন দেন তারকা ক্রিকেটাররা। রোয়িংয়ের স্কিলও ঝালিয়ে নেন কেএল রাহুল-ঋষভ পন্থরা।

এশিয়া কাপের উদ্বোধনী ম্যাচেই ভারত ও পাকিস্তান মুখোমুখি হয়েছিল। সেই ম্যাচে পাকিস্তান প্রথমে ব্যাট করে ১৪৭ রান করে। মহম্মদ রিজওয়ান সর্বোচ্চ ৪৩ রান করেছিলেন। জবাবে, ভারত শেষ ওভারে পাকিস্তানকে পাঁচ উইকেটে হারিয়ে দেয়। অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করেছিলেন। ২৫ রানে ৩ উইকেট নিয়েছিলেন। পরে প্রবল চাপের মুখে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ১৭ বলে ৩৩ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি। শেষ ওভারের পঞ্চম বলে ছক্কা মেরে ভারতকে জিতিয়ে দেন হার্দিক।

এরপর ৩১ অগস্ট হং কং-কে ৪০ রানে হারিয়েছিল ভারত। প্রথমে ব্যাট করে টিম ইন্ডিয়া তুলেছিল ১৯২/২। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই দুই ওপেনারকে হারায় হং কং। এরপর তিন নম্বরে নেমে লড়াই চালিয়েছিলেন বাবর হায়াত। ৩৫ বলে ৪১ রান করেন তিনি। চার নম্বরে নেমে ২৮ বলে ৩০ রান করেন কিঞ্চিৎ শাহ। তবে হং কংয়ের বাকি ব্যাটাররা কেউই রান পাননি। শেষ দিকে জিশান আলি ১৭ বলে অপরাজিত ২৬ রান ও স্কট ম্যাকেশনি ৮ বলে অপরাজিত ১৬ রান করলেও, শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ১৫২/৫ স্কোরে আটকে যায় হং কং। ফলে ভারত একপেশে ভাবেই ম্যাচ জিতে যায়।



[ad_2]

Leave a Reply